১০ হাজার শিক্ষক-শিক্ষার্থী পাচ্ছেন বিশেষ বরাদ্দের ১২ কোটি টাকা

১০ হাজার শিক্ষক-শিক্ষার্থী পাচ্ছেন বিশেষ বরাদ্দের ১২ কোটি টাকা

Screenshot-20230626-113813-Facebook

মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগের অধীন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান, শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের বিশেষ অনুদান খাতে রাখা বরাদ্দকৃত ১২ কোটি টাকা বিতরণ করেছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়। ঈদের আগে সারাদেশে ১০ হাজার ২৮৬ জন শিক্ষক-শিক্ষার্থী ও ২৪০টি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানকে দেওয়া এ অর্থ বিতরণ করা হবে মোবাইল ফিন্যান্সিয়াল সার্ভিস নগদের মাধ্যমে।

রোববার (২৫ জুন) শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগ থেকে এ সংক্রান্ত আদেশ জারি করা হয়।

এতে বলা হয়, শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগের বিশেষ অনুদানখাতে বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান, শিক্ষক ও শিক্ষার্থীদের প্রায় ১২ কোটি টাকা দিয়েছে সরকার। ৯ হাজার ৮৪৬ জন শিক্ষার্থী, ৪০০ জন শিক্ষক এবং ২৪০টি স্কুল-কলেজ এ টাকা পাবে।

একইসঙ্গে বিশেষ অনুদানের জন্য নির্বাচিত শিক্ষক, শিক্ষার্থী ও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের তালিকা প্রকাশ করা হয়েছে।

 

যারা পাবেন এ টাকা

শিক্ষা মন্ত্রণালয় থেকে জানা গেছে, মোট ৯ হাজার ৮৪৬ জন শিক্ষার্থীকে এ অনুদানের টাকা দেওয়া হয়েছে। এদের মধ্যে ৬ষ্ঠ থেকে ৮ম শ্রেণির ৩ হাজার ৬৭৫ জন শিক্ষার্থীর প্রত্যেকে ৮ হাজার করে মোট ২ কোটি ৯৪ লাখ টাকা দেওয়া হয়েছে।

 

৯ম ও ১০ম শ্রেণির ২ হাজার ৬২৫ জন শিক্ষার্থী প্রত্যেকে ৮ হাজার করে মোট ২ কোটি ১০ লাখ টাকা দেওয়া হয়েছে।মশাবাহিত রোগ প্রতিরোধ করতে দেশের সব অফিস-আদালত ও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান পরিচ্ছন্ন রাখার নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। ঈদুল আজহার ছুটির আগে এবং পরে খোলার সময়ে সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় পরিচ্ছন্ন করতে নির্দেশনা দিয়েছে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়।

 

রোববার (২৫ জুন) এ সংক্রান্ত নির্দেশনা জারি করা হয়।

 

এতে বলা হয়, সারাদেশে মশাবাহিত রোগ প্রতিরোধে সিটি করপোরেশন ও অন্যান্য মন্ত্রণালয় বা বিভাগ এবং দপ্তর বা সংস্থার কার্যক্রম পর্যালোচনার ভিত্তিতে গত ২২ জুন স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী মো. তাজুল ইসলামের সভাপতিত্বে দ্বিতীয় আন্তঃমন্ত্রণালয়ের সভা অনুষ্ঠিত হয়।

 

এ সভায় মন্ত্রী নির্দেশনা দিয়েছেন যে সব মন্ত্রণালয় বা বিভাগ নিজ উদ্যোগে তাদের অধীনস্থ দপ্তর অথবা সংস্থার আওতাধীন প্রতিষ্ঠানগুলো মশাবাহিত রোগ বিশেষ করে এডিস মশার প্রাদুর্ভাব প্রতিরোধের লক্ষ্যে এডিস মশার লার্ভা জন্মদান করতে না পরে সেজন্য ঈদুল আজহার ছুটির পরবর্তী অফিস বা বিদ্যালয় খোলার আগে পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন করতে বলা হয়েছে।

 

বিষয়টি নির্দেশনার প্রেক্ষিতে প্রয়োজনীয় কার্যক্রম গ্রহণসহ সংশ্লিষ্ট সবাইকে প্রয়োজনীয় নির্দেশনা দেওয়ার জন্য নির্দেশক্রমে অনুরোধ করা হয়।

 

 

 

About Ruma Khatun

আমি একজন সরকারি চাকরিজীবী। আমি শিক্ষার্থীদের জন্য অবসর সময়ে লেখা-লেখি করি। আমি সরকারি বি এল কলেজের সাবেক শিক্ষার্থী।

Check Also

হারমানপ্রীতের শাস্তি চাইলেন ভারতের বিশ্বকাপজয়ী ক্রিকেটার

হারমানপ্রীতের শাস্তি চাইলেন ভারতের বিশ্বকাপজয়ী ক্রিকেটার Apply Online Here বিশ্ব ক্রিকেটের নিয়ন্তা সংস্থা আইসিসি থেকে …

Apply Online Here