জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় থেকে মূল সনদ উত্তোলন ২০২২

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় থেকে মূল সনদ উত্তোলনঃ
১৯৯৩ থেকে ২০০০ পর্যন্ত যারা পাস করছে কেবল তারাই অনলাইনে মূল সনদের জন্য আবেদন করতে পারবে।

received-1249496322501291

মূল সনদ উত্তোলনের আবেদনের প্রয়োজনীয় কাগজপত্রঃ

১। সংশ্লিষ্ট কলেজ অধ্যক্ষের সুপারিশসহ আবেদন পত্র (নির্ধারিত ফরমে নির্দিষ্ট স্থানে পাসপোর্ট সাইজের ছবিসহ)।
২। রেজিস্ট্রেশন কার্ড।
৩। প্রবেশপত্র।
৪। নম্বরপত্র।
৫। সাময়িক সনদপত্র (মূল সনদপত্র গ্রহণের সময় বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃক ইস্যুকৃত সাময়িক সনদপত্র ফেরত দিতে হবে)।

আবেদন ফি ৫০০ টাকা। আবেদন এপ্রুভ হলে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় থেকে মূল সনদ উত্তোলন করতে পারবে।
২০০০ সালের পরের শিক্ষার্থীরা বিশেষ প্রয়োজনে বিদেশে বসবাস,বিদেশে উচ্চ শিক্ষা গ্রহণে অফার লেটার, ভিসা, পাসপোর্ট অথবা চাকুরীর জন্য মূল সনদের কথা উল্লেখ থাকলে সেই চিঠির সত্যতা যাচাই পূর্বক সাময়িক সনদ জমা দিয়ে মূল সনদ উঠাতে পারে।
মূল সনদ উত্তোলনের আবেদনের প্রয়োজনীয়

কাগজপত্রঃ
১। সংশ্লিষ্ট কলেজ অধ্যক্ষের সুপারিশসহ আবেদন পত্র (নির্ধারিত ফরমে নির্দিষ্ট স্থানে পাসপোর্ট সাইজের ছবিসহ)।
২। রেজিস্ট্রেশন কার্ড এর সত্যায়িত কপি
৩। প্রবেশপত্র শেষ বর্ষ সত্যায়িত কপি
৫। সাময়িক সনদ এর মূল কপি
৬। পার্সপোর্টের ফটোকপি
৭। কেন মূল সনদ প্রয়োজন তার জন্য নির্ধারিত ডকুমেন্ট
এছাড়াও যেসকল কাগজপত্র প্রয়োজন হতে পারেঃ
১। একাডেমিক ট্রান্সক্রিপ্ট
২। মার্কশীট
৩। সকল বর্ষের এডমিট কার্ড

সকল কাগজপত্র নিয়ে ওয়ান স্টপ সার্ভিসে যোগাযোগ করলে মূল সনদ উত্তোলনের জন্য পেমেন্ট স্লিপ দিবে ৫০০ টাকা সোনালী ব্যাংকে জমা দিতে হবে। এরপর পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক ও উপ-পরীক্ষা নিয়ন্ত্রকের স্বাক্ষর নিয়ে ওয়ান স্টপে কাগজপত্র জমা দিলে ৩/৪ কর্ম দিবসের মধ্যে মূল সনদ উত্তোলন করতে পারবেন।

বিঃদ্রঃ ২০০০ সালের পর মূল সনদ নিতে অবশ্যই Offer letter / Acceptance letter দেখাতে হবে।

About Ruma Khatun

আমি একজন সরকারি চাকরিজীবী। আমি শিক্ষার্থীদের জন্য অবসর সময়ে লেখা-লেখি করি। আমি সরকারি বি এল কলেজের সাবেক শিক্ষার্থী।

Check Also

অনলাইনে যে উপায়ে পড়াশুনা করা উচিত

Apply Online Here ** অনলাইনে যে উপায়ে পড়াশুনা করা উচিত ** বর্তমান ডিজিটাল বাংলাদেশে আমরা …

Leave a Reply

Your email address will not be published.