ব্যাংক পরীক্ষার প্রস্তুতি ২০২২

ব্রেকিং নিউজ | ব্রেকিং নিউজ

বাংলাদেশ ব্যাংকের AD এর পরীক্ষার তারিখ দিয়েছে ২৮-১০-২০২২।
বাংলাদেশ ব্যাংকে যাঁরা চাকরি করার স্বপ্ন দেখেন, তাঁদের জন্য সুখবর। ব্যাংক খাতে অন্যতম আকর্ষণীয় চাকরি হিসেবে ধরা হয় বাংলাদেশ ব্যাংকের সহকারী পরিচালক পদ। বিসিএসের মতোই এই পদ তরুণদের অন্যতম পছন্দের চাকরি এটি।

বাংলাদেশ ব্যাংকের AD সহ অন্যান্য ব্যাংক জব প্রস্তুতি শুন্য থেকে – যেভাবে নিবেন (২০২২ থেকে রিটেনে নতুন ট্রেন্ড নিয়ে আলোচনা )

ব্যাংকের পরীক্ষার ধরণঃ

প্রিলি। (৮০-১০০ মার্ক)
রিটেন। (২০০ মার্ক)
ভাইভা ( ২৫ মার্ক )

ফ্যাকাল্টি বেইজড পরীক্ষাঃ

বিগত কয়েক বছর ধরে ফ্যাকাল্টি বেইজড পরীক্ষা হচ্ছে অর্থাৎ পরীক্ষা কে নিচ্ছে তার উপর নির্ভর করে পরীক্ষার প্যাটার্ন ও ভিন্ন ভিন্ন। যেমন আইবিএ , আর্টস ফ্যাকাল্টি DU, CTI, বিজনেস স্টাডিজ যেই এক্সাম টেকার হোক না কেন , আগে তাদের বিগত সালের পরীক্ষা গুলোর প্রশ্ন সমাধান করেন , এনালাইসিস করেন তাদের প্রশ্নের প্যাটার্ন কেমন সে অনুযায়ী পড়ুন, কিছু প্রশ্ন হুবহু অপশন সহ রেপিট হয়। তাই যদি সম্ভব হয় পরীক্ষার আগেই জানা যে এক্সাম টেকার কে এবং তাদের প্রশ্ন গুলো আগেই ভালো ভাবে সমাধান করলে অনেকটাই সহজ হয়ে যায়। আর আগে থেকেই ভালো প্রস্তুতি নিতে হলে সবার ফ্যাকাল্টি বেইজড প্রশ্ন গুলি ভালো করে সলভ করুন।

প্রিলির প্রস্তুতিঃ

এমসিকিউ (৮০-১০০ মার্ক এর হয়) – ( বাংলা, ইংরেজি, গণিত, সাধারণ জ্ঞান ও কম্পিউটার) ।

এখনকার সময়ে সাধারণত বিসিএস বাদে ব্যাংক ও অন্যান্য পরীক্ষা গুলোতে যে ধরনের প্রশ্ন আসেঃ
১: বাংলা (১৫- ২৫ টি ) প্রশ্ন
২: ইংরেজি (১৫- ২৫টি ) প্রশ্ন
৩:গণিত (25 – 35 টি প্রশ্ন )
৪:সাধারণ জ্ঞান (১৫-২৫ টি ) ও
৫: কম্পিউটার (৮- ১২ টি ) প্রশ্ন আসে ।

এমসিকিউ পার্ট এর জন্য বাংলা, ইংরেজি, গণিত, সাধারণ জ্ঞান ও কম্পিউটার এর কমন টপিক গুলো আগে পড়বেন , যদি বিসিএস বা অন্যান্য চাকরির প্রস্তুতি নিয়ে থাকেন তাহলে বাংলা ও সাধারণ জ্ঞান অনেকটাই কাভার হয়ে যাবে, না হলে গুরুত্বপূর্ন টপিক গুলো ভালো করে পড়তে থাকুন , আর গণিত ও ইংরেজির জন্য কিছু গুরুত্বপূর্ন টপিক আছে যে গুলো থেকে প্রায় প্রশ্ন হয় সে গুলো আগে শেষ করুন , কম্পিউটার পার্ট টি খুবই গুরুত্ব সহকারে পড়ুন, কারণ অন্য সাবজেক্টে খারাপ করলে কম্পিউটার থেকেই কাভার করতে পারবেন।

কোন বই – কিভাবে পড়বেন – টপ সাজেশন – বুক লিস্ট

বর্তমান সময়ে পরীক্ষার ধরণ অনুযায়ী প্রস্তুতি নিতে হবে তাহলেই আসবে সাফল্য। এখনকার সময় গুলো তে পরীক্ষা হচ্ছে ফ্যাকাল্টি বেইজড, আর আপনি যদি পড়তে থাকেন গতানুগতিক তাহলে যে কোন পরীক্ষার প্রিলিতেই পাশ করা অসম্ভব হয়ে যায় ।

ব্যাংক প্রিলির জন্য কোন বই পড়বেনঃ

১। বাংলাঃ বাংলার জন্য জর্জ এর MP3 বা অভিযাত্রী বা অগ্রদূত বা শীকর এর বাংলাটা পড়তে পারেন । বাংলায় একটা স্ট্রং জোন তৈরি করুন ,গ্রামার পার্ট ভালো করে পড়ুন। বাংলা আপনাকে এগিয়ে রাখবে।

২। ইংরেজিঃ ইংরেজি গ্রামারের জন্য Competitive Exams অথবা MASTER বা ইংলিশ টিউটর থেকে বুঝে বুঝে পড়ুন। Saifur’s এর গ্রামার ও ভোকাবুলারির বইটাও দেখতে পারেন। ইংরেজি দেখে ভয় পাবেন না, রেগুলার ইংরেজি পড়লে অনেকটাই আপনার আয়ত্তে থাকবে।

৩। গনিতঃ ফ্যাকাল্টি বেইজড কোন ম্যাথ বই পড়ুন , ম্যাথ এর বেসিক টপিক গুলো আগে ক্লিয়ার করুন, আগারওয়াল ম্যাথ সাথে সাইফুরস ম্যাথ টা দেখতে পারেন বা খাইরুলস ম্যাথ বা ম্যাথ জব সল্যুশন বা অন্য কোন বই দেখতে পারেন । গণিতটা প্রতিদিন প্যাকটিস করে নিজের আয়ত্তে নিন। রিসেন্ট জব স্ল্যুশন থেকে বিগত প্রশ্ন সমাধান করে যাবেন।

৪। সাধারন জ্ঞানঃ বাংলাদেশও আন্তর্জাতিকঃ জর্জ এর MP3 বা কারেন্ট অ্যাফেয়ার্স ম্যানুয়াল বা আজকের বিশ্ব যে কোন একটা ভালো করে পড়ুন , বেসিক ক্লিয়ার করুন, কমন টপিক গুলো আগে ভালো করে শেষ করুন। সাম্প্রতিকঃ কারেন্ট অ্যাফেয়ার্স বা যে কোন সাম্প্রতিক ও দৈনিক পত্রিকা একবার পড়ুন ।

৫। কম্পিউটার ও তথ্যপ্রযুক্তিঃ “সেলফ সাজেশন বেসিক কম্পিউটার ” বইটি দেখতে পারেন , ফ্যাকাল্টি বেইজড প্রশ্ন AUST,Arts faculty, IBA এর সকল প্রশ্নের সমাধান দেয়া আছে , স্বল্প সময়ে প্রস্তুতি নেয়া যায়। ৪৪ বিসিএস সহ গত কয়েকটি পরীক্ষায় এখান থেকে হুবহু কমন ছিল । অন্য যে কোন বিষয়ে খারাপ করলে কম্পিউটার থেকে কাভার করতে পারবেন তাই গুরুত্ব সহ পড়ুন। এই বইয়ের প্রতিটি পরিচ্ছেদের শেষে অটো সাজেশন গুলো ভালো করে পড়ূন।

Arts faculty কম্পিউটার থেকে ১০ মার্কস রাখে এবং আর্টস ফ্যাকাল্টির সকল বিগত আইসিটি প্রশ্ন ও ফুল ইন্সট্রাকশন সেলফ সাজেশন বেসিক কম্পিউটার বইতে দেওয়া আছে। বিগত আর্টস ফ্যাকাল্টির সকল প্রশ্ন সেলফ সাজেশন বেসিক কম্পিউটার থেকে হুবহু কমন ছিল। আর্টস ফ্যাকাল্টির প্রশ্নে কম্পিউটার অংশে সর্বোচ্চ কমনের প্রস্তুতি নিতে সেলফ সাজেশন বেসিক কম্পিউটার বই থেকে ব্যাংকের জন্য দেওয়া ইন্সট্রাকশন ও অটো সাজেশন গুলো আগে পড়ে ফেলুন এগিয়ে থাকবেন।

 

ব্যাংক রিটেনের জন্য কোন বই পড়বেনঃ
রিটেনে সাধারণত (২০০) মার্কস এর হয়ঃ

২০২১ এর আগের ট্রেন্ড এ যদি পরীক্ষা হয়ঃ
———————–
১। বাংলা ও ইংরেজিঃ (১১০-১৩০ মার্ক এর হয়): এর জন্য যে কোন ফোকাস রাইটিং যেমন লতিফুর রহমান বা A2B বা ইউসুফ আলী সহ বেসিক ফোকাস রাইটিং এর যে কোন বই থেকে ধারণা নিন, পয়েন্ট ,তথ্য, উক্তি গুলো আলাদা নোট করে রাখুন কাজে লাগবে। ট্রান্সলেশন, শর্ট প্রশ্ন, লেটার ভালো করে দেখুন। মনে রাখবেন এগুলো লেখার সময় গ্রাফিক্যাল রিপ্রেজেন্টেশন করার চেষ্টা করুন ভালো মার্ক পাবেন যেমন, ছক, পয়েন্ট, গ্রাফ, রেফারেন্স, চার্ট ব্যাবহার করুন।

২। গনিতঃ সাধারণত ৭০-৯০ মার্কের হয় ( পরীক্ষাভেদে ৭-১০ টার মত অংক থাকতে পারে): ফ্যাকাল্টি বেইজড কোন ম্যা

About Ruma Khatun

আমি একজন সরকারি চাকরিজীবী। আমি শিক্ষার্থীদের জন্য অবসর সময়ে লেখা-লেখি করি। আমি সরকারি বি এল কলেজের সাবেক শিক্ষার্থী।

Check Also

সমন্বিত ৯ ব্যাংক পরীক্ষার সময়সূচী ও আসনবিন্যাস ২০২৩

পছন্দের এলাকায় পার্টটাইম/ফুলটাইম চাকরি খুঁজে পেতে এই অ্যাপটি ইন্সটল করে এখনই আবেদন করুন সমন্বিত ৯ …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *